কীট

আমি না হয় ঘুমিয়ে ছিলাম-
মাটি চাপা কোন সভ্যতায়,
তাই বলে তুমি পিছিয়ে গেলে-
পশুত্বে আর নগ্নতায়?

আলো দেখলে ভয়ে পালাও
ধ্বংস যজ্ঞে দু’হাত বাড়াও,
কোন শিক্ষায় নিলে দীক্ষা-
কোন সুখের আশায়?
— পশুত্বে আর নগ্নতায়।

নগ্ন দেহে কী এসে যায়!
মন নগ্ন ভয়ানক,
মানুষেরে তাই অবজ্ঞা করে
খুঁজিতেছো রোজ সাদা বক।

সাদা পায়রায় বিশ্বাসী নও,
বকের মধ্যে যত সুখ ;
প্রাচীন সব তাই -ভাঙিস খুঁজে,
পচে যাওয়া বিশাক্ত পুঁজ।

< ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ >

Advertisements

হিসেব

একদিন মিশে যাব —ভুলে যাওয়া কোন এক বিকেলে,
পরে রবে রবী’দা, দেয়ালের ছবিটা;
গিফটের চুড়ি হবে সেকেলের।

ভুলে যাবে জয়গান —- যন্ত্রের কর-তান
ভুলে যাবে পুণ্য বাক্য,
ভুলে যাবে শুক্রবার —- প্রেম প্রেম খেলিবার
ভুলে যাবে রবী’দার কাব্য।

নতুনের আগমনে —- ঘুনেধরা যৌবনে
খুঁজে পাবে একরাশ জ্যোছনা,
সুখ সুখ অংকন —– অধরাই সারাক্ষণ
বিকেলের আমি তাই কিছুনা।

ফেলে আসা উপবাস —– জ্ঞানের নির্যাস
রবে পরে হয়ে যেন দিকভুল,
কুবেরের ধন হাতে —– ছুটে চলা দিনে রাতে
কবেকার প্রেম ছিল নির্ভূল?

জেগে থাকা পাহাড়ে —– সাক্ষীর বাহারে
আমি আছি অগণিত অতীতের,
শিশিরের ফোঁটা জল —- অনন্তকালের টলমল
ভুলে যাওয়া কোন এক বিকেলের।
—রিপন দেব নাথ

<২৭ বৈশাখ, ১৪২৪বঙ্গাব্দ>
<মঙ্গলবার, রাত: ৩ঃ১২>