গড্ডলিকা প্রভাহে ভাসছে গা

খুব অল্প বয়সেই শরীরের ওজন বাড়িয়ে এ প্লাস করে ফেলেছে! যে বয়সে শারীরিক ও মানষিক সুস্থতার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম ও খেলাধুলা করা প্রয়োজন, সেই সময়টাতে উঠতি বয়সেই বালকেরা বাজি ধরতে শিখে গেছে! খেলতে শিখে গেছে টিভির পর্দার সামনে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা বা অন্য কোন দলের কট্টোর সমর্থক হয়ে! কিভাবে আরেক দলের সমর্থককে চরমভাবে ঘায়েল করা যায়, তা তাদের আজ সিদ্ধহস্ত। খেলা হচ্ছে রাশিয়ায় কিন্তু হাওয়ার বেগটা যেন আমাদের ওপরই বেশি! রাস্তা-ঘাটে, আড্ডায় বা অন্য কোনখানে, যেখানেই কয়েকজন একসাথে হয়, সেখানেই ফুটবলাবলি! এ নিয়ে বিভিন্ন সমর্থকদদের মধ্যে কোপাকুপি পর্যন্ত হয়ে যাচ্ছে!
লিংকঃ

http://www.banglatribune.com/country/news/334825/%E0%A6%96%E0%A7%81%E0%A6%B2%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%86%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%9C%E0%A7%87%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%87-%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%A5%E0%A6%95%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%95%E0%A7%81%E0%A6%AA%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87%E0%A6%9B%E0%A7%87-%E0%A6%AC%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%9C%E0%A6%BF%E0%A6%B2

একেকজনের কাছে শুনলে মনে হবে যেন প্রত্যেকেই এক একজন ফুটবল বিশ্লেষক। কত সুন্দর ভাবতে পারে সবাই। কিন্তু হায়!
মাত্র অল্প কয়দিনে নিজের দেশের কত মানুষ সরক দূর্ঘটনায় মারা গেল, তার খবর কেউ রাখে না! কেন সরক দূর্ঘটনা হয়, এ বিষয়ে যেন কারো ভাবনার গোলপোস্টে বল ঢুকে না!
https://www.jagonews24.com/topic/%E0%A6%B8%E0%A7%9C%E0%A6%95-%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%98%E0%A6%9F%E0%A6%A8%E0%A6%BE
এত্তগুলো প্রাণ নিমিষেই ঝরে পড়ার পরেও এ বিষয়ে কোন আলোচনা নেই! সব মাতামাতি যেন অকাজে! রঙ বেরঙের যেসব ফুটবল তারকা দেশের পতাকা উড়ছে আশেপাশে, এসব কেন জানি কালো হয়ে যায়! মনে হয়, সবাই রাষ্ট্রীয় শোক পালন করছে সরক দূর্ঘটনায় কয়েকদিনের মৃত্যুতে!

দেশে কত শিক্ষিত বেকার । কর্মসংস্থান নেই। ইতোমধ্যে একটা বড় সংকট তৈরি হয়ে গেছে! সব বেকারের কর্মসংস্থান হবে, ভাবনাটা হবে এমন। কিন্তু না, ব্যাপারটা হয়েছে এমন – নিজে বাঁচলে বাপের নাম!

গ্রামে কৃষকের হা-হুতাশ সৃষ্টি হয়ে গেছে! ধানের দাম নেই! যত টাকা খরচ করে তারা এক বিঘা জমিনে ফসল ফলায়, সেই ফসল বিক্রি করে তাদের আসল টাকাই ওঠে না!

ভিতরে ভিতরে মানুষের মধ্যে অসহিষ্ণুতার একটা শক্ত আবরণ পড়ে গেছে! কেউ কেউ সরাসরি সেই আবরণের যত্ন করিতেছে!এসব পরিবর্তন লাভের না ক্ষতির এসবে কারো ভাবনা নেই!

এমন অসংখ্য বিষয় আছে যা চোখ খুললেই দেখা যায় এবং এসব বিষয়ে ভাবনা খুব জরুরী। কিন্তু আমরা চোখ বন্ধ করে অন্ধ সেজে এসব বিষয় দেধারচে এড়িয়ে চলছি!